মুটিং এর সুবিধাসমূহ

ছাত্রজীবনে আইন শিক্ষার্থীদের মুটিং এক অসামান্য অভিজ্ঞতার সাথে পরিচয় করায় যা তার সামনে পথ চালায় বেশ সাহায্য করে।

মুটিং করতে গিয়ে একজন ছাত্রকে এমন ভাবে চিন্তা করতে হয় যেন তার ক্লায়েন্ট/মক্কেলে জীবন-মরণ তার হাতে, তাকে প্রতিটি বিষয় নিয়ে ভাবতে হয় গবেষণা করতে হয়, একজন মুটারকে দক্ষতার সাথে আইনি বিষয় সূমুহ এবং মুট কর্তৃক আরোপিত প্রশ্নের যথাযথ জবারে জন্য প্রস্তুত থাকতে হয়। একটি দলকে দু দিক থেকেই ভাবতে হয় কারণ প্রতিযোগিতার ঠিক আগমুহূর্তেই কেবল তারা জানতে পারেন তারা পক্ষে বলবেন না বিপক্ষে। তাই এটা অনেক বড় একটি মানুষিক চাপের পরীক্ষা। মুটের গবেষণা করার ফরে ছাত্ররা Legal terms, Legal materials, Law, Case Law ইত্যাদি সঠিক ভাবে খুঁজে বের করতে শেখেন। অন্যদিকে আপর পক্ষ যে যুক্তি উপস্থাপন করে তার ভুল ধরা এবং আক্রমণ করার জন্য মুটাররা সর্বদাই প্রস্তুত থাকেন, এতে তদের একাগ্রতা ও মনোযোগ ক্ষমতার বেশ উন্নতি হয়। অনেক সময় দেখা যায় দৃশ্যত হেরে যাবে এমন কেইসও উন্নত মানের যুক্তি উপস্থাপন বা বিপক্ষ দলের ভুল ব্যাখ্যার করনে হেরে যায়।

বাস্তব জীবনে আইনজীবীরা যেভাবে একটি বিষকে নিজের মত করে ব্যাখ্যা প্রদান করে মুটাররাও মুটিং এর মাধ্যমে এই দক্ষতা অর্জন করতে শেখে।

একজন লেখক এই দক্ষতাকে এভাবে বর্ণনা করেন:

” একটি মামলার কারণ যতই নৈরাশ্য জনক, মক্কেল যতই গর্ধব এবং বিচারক যতই বায়াস্ড হোক না কেন এ বিষয়ে যতই উদ্বেগ একজন আইনজীবীর মনে উকি দিক না কেন তাকে অবশ্যই এডভোকেসির ঐতিহ্য অনুসরণ করতে হবে। তাকে মক্কেলের স্বার্থে প্রতিটি সম্ভাব্য উপায় বের করতে গিয়ে তাকে তিলকে তাল করতে পারর যোগ্যতা থাকতে হবে এবং যেখানে পূর্ববর্তী এডভোকেটরা কোন পয়েন্টই খুঁজে পাননি তাকে বের করতে হবে “

Rayhanul Islam

রায়হানুল ইসলাম বর্তমানে আইন পেশায় নিয়জিত আছেন, এছাড়াও তিনি লেখালেখি করেন এবং ল হেল্প বিডির সম্পাদক। তথ্য ও প্রযুক্তি, মনোবিজ্ঞান এবং দর্শনে তার বিশেষ আগ্রহ রয়েছে। প্রয়োজনে: [email protected] more at lawhelpbd.com/rayhanul-islam

You may also like...

Leave a Reply

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: